বুধবার, অক্টোবর ২১, ২০২০
আজ বৃহস্পতিবার, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
৫ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪২ হিজরি
Home নারী বিয়ে না করেই এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক নারী চিকিৎসক

বিয়ে না করেই এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক নারী চিকিৎসক

পশ্চিমবঙ্গে বিয়ে না করেই এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক নারী চিকিৎসক। ওই চিকিৎসকের নাম শিউলি মুখোপাধ্যায়।দীর্ঘদিন ধরে তিনি কলকাতায় ‘একক মাতৃত্ব’ নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করছেন এতোদিন বিভিন্ন নারীকে তিনি মাতৃত্বের স্বাদ গ্রহণের সুযোগও করে দিলেও এবার নিজেই সেই পথে হাঁটলেন

কলকাতার বালির বাসিন্দা এ নারী দেড় বছর আগে তিনি একক মাতৃত্বের পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নেন। তার একাকিত্ব ঘোঁচাতে ও অন্যদের উৎসাহিত করতে তিনি এ সিদ্ধান্ত নেন বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। সেই ভাবনা থেকেই অবিবাহিত শিউলিদেবী এখন এক পুত্র সন্তানের মা।

৩৯ বছরের শিউলিদেবী ছেলের নাম রেখেছেন ‘রণ’। তবে ছেলের জন্মের পরেই এক তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছে শিউলির। তিনি বলেন, ‘ছেলের জন্মের কাগজপত্রে বাবার নামের জায়গায় কী লিখবেন সেটা বুঝে উঠতে পারছিলেন না।

তিনি জানান, শেষে আদালতে এফিডেভিট করে এবং সিঙ্গল মাদারের ক্ষেত্রে কলকাতা পৌরসভার দেয়া একটি শিশুর জন্মের কাগজপত্রের কপি ও সুপ্রিম কোর্টের রায়ের কাগজপত্র পৌরসভায় জমা দেয়ার পরেই নিজের সন্তানের কাগজপত্র তৈরি হয়।

শিশু বয়স থেকেই রণকে সিঙ্গেল পেরেন্ট বা সিঙ্গল মাদারের বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা বোঝাতে চান শিউলি। তিনি বলেন, ‘ছোট থেকেই ওকে বুঝিয়ে দিলে বড় হয়ে আর মনে কোনও সংশয় থাকবে না।

প্রায় ১১ বছর আগে স্ত্রী-রোগ চিকিৎসক হিসাবে কাজ শুরু করার পরে তার হাতেই জন্ম হয়েছে অসংখ্য শিশুর। তবে সিজারিয়ান করে ছেলের জন্মের পরে প্রথম তাকে কোলে নেওয়ার অনুভূতি একেবারে অন্যরকম বলেই জানান তিনি।
শিউলিদেবী জানান, এমডি পড়ার সময় থেকেই বাড়ি থেকে তাকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়া শুরু হয়।

‘বয়স বাড়ার সঙ্গে ক্রমশ একাকীত্বও বাড়ছিল। অল্পতেই রেগে যাচ্ছিলাম। তখনই এই সিদ্ধান্ত নিলাম। ’ এর পরেই বাবা-মায়ের সঙ্গে আলোচনা করে পাকাপাকি ভাবে সিঙ্গেল পেরেন্ট হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন তিনি

কিন্তু তার সেই স্বপ্নে অঙ্কুরেই বিনাশ হওয়ার পথে।ছয় বছর বয়সী আরিয়াস মরণব্যাধি ক্যানসারে আক্রান্ত।পুলিশে চাকরি করতে না পারার যন্ত্রণা কুড়ে খাচ্ছিল ক্যান্সারাক্রান্ত আরিয়াসকে।তবে সম্প্রতি কিছুক্ষণের জন্য হলেও তার সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।

আরিয়ানের বাড়ি যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস শহরে। বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকে ছোট্ট মেয়েটি।বছর আগে তার শরীরে ক্যানসার ধরা পড়ে। গত পাঁচ মাসে ৮০ রাউন্ড কেমোথেরাপি দেয়া হয়েছে তাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে শাড়ি উপহার, মিথিলা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে শাড়ি উপহার পেয়ে ভীষণ আনন্দিত রাফিয়াত রশিদ মিথিলা.এখন কলকাতার বউ। বিয়ের পর প্রথম দুর্গোৎসবে শ্বশুরবাড়ি...

হলুদের অনুষ্ঠানে ভিন্ন রূপে, ব্যাটিংয়ে সানজিদা!

গায়ে জড়ানো হলুদ শাড়ি, মাথায়, হাতে, কপালে ফুলের সাজ। ছবি দেখেই বোঝাই যাচ্ছে ‘বিয়ার সাজনী সাজো কন্যা লো’ গানের সেই কনে। কিন্তু...

প্রীতি জিনতা তার টুইটারে জানিয়েছেন ক্রিকেট একটি অবিশ্বাস্য খেলা

প্রীতি জিনতা, প্রীতি জিনতা তার টুইটারে জানিয়েছেনক্রিকেট একটি অবিশ্বাস্য খেলা। যা যে কোনও মুহুর্তে মনোমুগ্ধকর পরিবেশ তৈরি করতে পারে।যা ক্রিকেটের খেলায় সম্মান...

নেশাগ্রস্ত হয়ে যুবক তার সৎমাকে যৌন হয়রানি চেষ্টা

'মিজানুর মাদকসেবন ক‌রে বলে আমরা জানি। নেশাগ্রস্ত হয়ে সে প্রায়ই তার সৎমাকে যৌন হয়রানির চেষ্টা ক‌রে।নাওডাঙ্গা ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শাহাজামাল মিয়া স‌ন্তোষ...

Recent Comments