বুধবার, ডিসেম্বর ২, ২০২০
আজ বুধবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
১৭ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
Home Design Interiors যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর নির্বাচিত হয়ে মায়ের কাছে বাংলাদেশের কিশোরগঞ্জের ছেলে, মুজাহিদ

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর নির্বাচিত হয়ে মায়ের কাছে বাংলাদেশের কিশোরগঞ্জের ছেলে, মুজাহিদ

দুজন থাকেন দুই দেশে। ইচ্ছা করলে,ও যখন-তখন কেউ কারও কাছে আসতে পারেন না। তাই বলে কি মা-ছেলের ভালোবা,সায় ভৌ,গোলিক সীমারে,খা বাধা হতে পারে? মূ,লত সন্তানের ভালো,বাসার কাছে কোনো বাধাই টিকে না।

সন্তা,ন যত বড়ই হোক মায়ের কাছে সবসময় ছোট; খোকা হয়ে আজী,বন মায়ের হৃদয়ে থাকে। যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক চন্দন দীর্ঘ,দিন ধরে ডেমো,ক্র্যাট দলের শীর্ষ নেতা। ভাই-বোনদের বে,শিরভাগই দেশের বাইরে। এবার যুক্তরাষ্ট্রের সিনে,টর নির্বাচিত হয়ে মায়ের কাছে বাংলাদেশের কিশো,রগঞ্জে ছুটে এলেন তিনি। নেন,নি কোনো সরকারি প্র’টোকল।

যুক্তরা,ষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরা,জ্যের সিনেটর ছেলেকে কাছে পেয়ে আবে’গ ধরে রাখতে পারেননি মমতাময়ী মা সৈয়দা হাজেরা খাতুনের বয়স ১০০ ছুঁই ছুঁই। অনেক দিন পর সন্তানকে কাছে পেয়ে জড়িয়ে ধরে বারবার চুমু খাচ্ছিলেন মা। মায়ের ভালোবাসায় সি’ক্ত হয়ে সিনেটর ছেলের দু’চোখ দিয়ে ঝরছিল আনন্দ অশ্রু। গত বুধবার সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলার সরারচর গ্রামে বৃদ্ধা মা আর সিনেটর ছেলের এমন ভালোবাসার দৃশ্য দেখে সবার চোখে জ’ল নামে।

জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের ডেমোক্র্যাট পার্টির সিনেটর শেখ মুজাহিদুর রহমান চন্দনের গ্রামের বাড়ি বাজিতপুর উপজে’লার সরারচর গ্রামে। গত নভেম্বর মাসে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরা’জ্যের সিনেটর নির্বাচিত হন। গ্রামের বাড়ি সরারচরে মা সৈয়দা হাজেরা খাতুন বসবাস করেন। মূলত মাকে দে’খার জন্যই গ্রামের বাড়িতে ছুটে আসেন মু’জাহিদুর।

অনেক দিন পর ছেলে’কে কাছে পেয়ে কেঁ’দে ফেলেন মা হাজেরা। ছেলে-মেয়ে বড় হয়ে একদিন দেশ-বিদে’শে সুনাম কুড়াবে- এমন স্বপ্ন ছিল তার। আজ ছেলে সিনেটর হওয়ায় আন’ন্দের শেষ নেই তার।

হাজেরা খাতুন বলেন, অনেক দিন পর ছেলে’কে কাছে পেয়েছি। এ আনন্দ কেমন করে ধরে রাখি। আমার বি’শ্বাস ছিল ছেলে-মেয়েরা একদিন দেশ-বিদেশে সুনাম কুড়াবে। বড় ছেলে সি’নেটর নির্বাচিত হওয়ায় আমি সব’চেয়ে আনন্দিত। তিনি বলেন, আমার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। আমি মনে করি আমার ছেলে একদিন যুক্তরা’ষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হবে। হয়তো সেদিন আ’মি থাকব না। তবে দেখে যেতে পারলে অনেক খু’শি হবো।

মুজাহি’দুর রহমা’ন চন্দন বলেন, মূলত মাকে দেখার জন্যই এখানে ছু’টে আসা। ছয় বছর আগে একবার দেশে এসে’ছিলাম। এবারের আসাটা একে’বারেই ভিন্ন। ৩৯ বছর পর এই প্রথম’বারের মতো বাড়ি’তে এসে সব ভাই-বোনের দেখা পেয়ে’ছি। একসঙ্গে সবার সময় কা’টানোর সুযোগ হয়েছে। আজ আ’মাদের খু’শির দিন।

বাড়ি’তে মুজা’হিদুরের সঙ্গে আরও উপস্থি’ত রয়েছেন- বড় বোন তাহেরা হক, ছোট ভাই ব্যবসায়ী শেখ মুজিবুর রহমান ইক’বাল, ছোট বোন ডা. তাহমিনা আক্তার সামিয়া, ছোট বোন যুক্তরা’ষ্ট্রের ব্যবসায়ী নাদিরা রহমান ও নাহি’দা আক্তার, ভাগনি জামাই যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ওয়েস্টিন সাসম্যান ও ভাগনি মিশা’সহ পরি’বারের সদ’স্যরা।

যুক্তরা’ষ্ট্রের সিনেটর নির্বাচিত হওয়ায় এলাকাবাসী মুজা’হিদুরকে সংবর্ধনা দেন। সিনেটর নির্বা’চিত হওয়ায় বুধবার সন্ধ্যায় বাজিত’পুরের সরারচর এলাকার বাড়িতে এ সংব’র্ধনার আয়ো’জন করা হয়।

মুজাহিদুর রহমান চন্দন বলেন, এলাকা’বাসীর এ ঋণ কোনো দিন শোধ করতে পারব না। বাং’লাদেশ দ্রুতগতিতে উন্ন’তির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। বাং’লাদেশ এখন আর আগের বাংলাদেশ’ নেই। মা’নুষের ভাগ্যে’র উন্নতি হয়েছে। মাথাপি’ছু আয় বেড়েছে। এ যেন বদলে যাওয়া এক বাংলাদেশ। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, স্ত্রী, এক কন্যা ও এক ছেলের বাবা শেখ মু’জাহিদুর রহমান চন্দন আট’লান্টায় বসবাস করেন। বাবার চাক’রির সুবাদে তার ছোট’বেলা কাটে ঢাকায়।

বাবা শেখ নজিবর রহমান ছিলেন মুক্তি’যোদ্ধা ও আগরতলা জয়বাং’লা যুব শিবিরের সুপা’রভাইজার। আশির দশকে মু’হিদুর যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। এরপর তিনি নর্থ ক্যারোলিনায় ইউনিভার্সিটি অব জ’র্জিয়া থেকে এমবিএ করেন।

মুজা’হিদুর রহমান চন্দন গত বছর ডেমো’ক্র্যাট পার্টির সম্মেলনে জাতীয় কমিটিতে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে কার্য’করী সদস্য নির্বাচিত হন। গত বছরের নভেম্বরে তিনি জর্জিয়া অঙ্গরা’জ্য থেকে সিনেটর নির্বাচিত হন। ২০১২ সালে জর্জি’য়া রাজ্যের সাধারণ প্রতিনিধি পরিষ’দের প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্ব’ন্দ্বিতা করে আলোচনা’য় আসেন মুজা’হিদুর রহ’মান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

২ হাত ছাড়াই বিশ্ববি’দ্যালয় পেরিয়ে আজ অনেক বড় অফিসার !

'তখন সবে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী' তিনি। আর দশটি শিশুর মতোই হেসে-খেলে বেড়ে উ'ঠছিলেন। তবে হঠাৎই নেমে আসে মস্ত বড় একটা বিপদ। সময়টা...

ট্রেন আসছে,৫৪ মিনিটে ঢাকা-চট্টগ্রাম যাওয়ার

ভোরের আলো নিউজ: ৫৪ থেকে ৫৫ মিনিটে রাজ'ধানী ঢাকা থেকে যাওয়া যাবে চ'ট্টগ্রামে। যেখানে রেলপ'থে ঢাকা থেকে চট্টগ্রা'ম পৌঁছা'তে এখন সময় লাগে...

বড় মে’য়েদের পছন্দ করতেন প্রিয়াঙ্কার স্বামী

 বলিউ'ড অভি'নেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপ'ড়াকে বিয়ে করে আলো'চনায় তিনি। মূলত বয়সে ১০ বছরের বড় প্রিয়াঙ্কা চো'পড়াকে বিয়ে ক'রেই খব'রের শিরো'নামের আসে'ন তিনি। বিয়ের...

চলতি বছর বিয়ে বিচ্ছেদ হয়েছে চার নায়িকার।

বিচ্ছে'দের খবরে ভারী শো'বিজের বাতাস। এই মহা'মারির সময়েও ব্যক্তিগত জীবন উল্টে গেছে অনেক তার'কার। চল'তি বছর ঢাকাই শোবিজে বিচ্ছেদের পথে হেঁটেছেন শাবনূর'-অনিক,' অপূর্ব'-নাজিয়া,'...

Recent Comments